FORMAL, NON-FORMAL EDUCATION

দরিদ্র জনগোষ্ঠীর আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের লক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে চলমান শিক্ষা ও মানব সম্পদ উন্নয়নমূলক প্রকল্প ও কার্যক্রমের মধ্যে রয়েছে –

1.  Education and Social support for the children and adolescents living in Bauniabad slum (ESCAS)

2. Contrasting Gender Discrimination and promoting social development in order to amplify the life opportunities of children and adolescents in 5 Dhaka slums.

3. যুক্ত হয়ে মুক্ত (United We Stand).

4. Tongi Children Education Program-TCEP

5. আরবান স্কুল, চানমারী

6. Student’s internship Program -SIP

প্রকল্পসমূহের বিস্তারিত

স্কুলের নামব্লক/এলাকাওয়ার্ডথানাজেলা
আরবান স্কুলবাউনিয়াবাদ, ব্লক-এপল্লবীঢাকা
আরবান স্কুলবাউনিয়াবাদ, ব্লক-সিপল্লবীঢাকা

আরবান পরিচালিত ২ টি স্কুলে মে, ২০১৭ শেষে বর্তমান মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ৫৬৮ জন । এর মধ্যে প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা ক্লাসে ছাত্রী ৬৮ ও ছাত্র ৪১ জন । প্রাথমিক শিক্ষা ক্লাসে ছাত্রী ২৮৩ জন ও ছাত্র ১৭৬ জন ছাত্র-ছাত্রীর উপস্থিতির হার ৮৬.১৩% । এর মধ্যে প্রাক প্রাথমিক ক্লাসে ছাত্র-ছাত্রীর গড় উপস্থিতির হার ৯০%

মে, ২০১৭ সময়ে ২ টি স্কুলে মোট ২২৯ জন ষ্পন্সরশীপ শিক্ষার্থী রয়েছে । এর মধ্যে আরবান স্কুলে ৯৩ জন ও অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যয়নরত ১৩৬ জন শিক্ষার্থী

স্কুলের নামষ্পন্সরশীপ শিক্ষার্থীর সংখ্যাআরবান স্কুলেঅন্যান্য স্কুলেমোট ষ্পন্সরশীপ শিক্ষার্থী
আরবান স্কুল, ব্লক এ১১৫৬৩৫২১১৫
আরবান স্কুল, ব্লক সি১১৪৩০৮৪১১৪
মোট২২৯৯৩১৩৬২২৯

শিক্ষার্থীদের পুষ্টি চাহিদা পূরণ করার লক্ষ্যে ইউগ্লেনা কর্পোরেশন লিমিটেড, জাপান এর অর্থায়নে ইউগ্লেনা গেংকি প্রোগ্রাম এর আওতায় আরবান পরিচালিত ২ টি  স্কুলের সকল শিক্ষার্থীদের প্রতিদিন ১ প্যাকেট করে ইউগ্লেনা পুষ্টি বিস্কুট প্রদান করা হচ্ছে । মে, ২০১৭ মাসে আরবান পরিচালিত ২ টি স্কুলে মোট ৮৭২৪ প্যাকেট বিস্কুট বিতরণ করা হয়েছে । এর মধ্যে আরবান এ ব্লক স্কুলে ৫৩ টি এবং আরবান সি ব্লক স্কুলে ৪২১৩ প্যাকেট ও আরবান সি ব্লক স্কুলে ৪৫১১ প্যাকেট বিস্কুট বিতরণ করা হয়েছে ।

১৬ মে, ২০১৭ আরবান প্রকল্পাধীন  এলাকার বিভিন্ন স্কুলসমূহের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের নিয়ে এক orientation session আয়োজন করে । মূলত স্কুলসমূহে Gender Education Program পরিচালনা করার জন্য স্কুলসমূহের শিক্ষক শিক্ষিকাদের Gender Education বিষয়ে Orientation প্রদান করা হয় ।

সেশনে মোট ৫ টি স্কুল থেকে ১০ জন শিক্ষক শিক্ষিকা অংশগ্রহন করেন ।

২১ মে, ২০১৭ মাস হতে আরবান প্রকল্পাধীন বাউনিয়াবাদ এলাকার ৫ টি স্কুলে ছাত্র-ছাত্রীদের জেন্ডার বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জেন্ডার এডুকেশন কর্মসূচী পরিচালনা করে আসছে । মূলত এতে ৫১৮ জন ছাত্র-ছাত্রী ৪ টি মডিউলের মোট ২৫ টি সেশন সম্বলিত জেন্ডার শিক্ষা গ্রহনের মাধ্যমে জেন্ডার বিষয়ে জ্ঞান লাভ করবে । উক্ত মাসে ছাত্র-ছাত্রীর অংশগ্রহনের মোট সংখ্যা ছিল ৪৫৩ জন । এর মধ্যে উদয়ন হাই স্কুল এন্ড কলেজ হতে ৬০ জন শিক্ষার্থী, মিরপুর শাহীন স্কুল হেতে ১৪৪ জন শিক্ষার্থী, মিরপুর আইডিয়াল স্কুল হতে ১৫০ জন শিক্ষার্থী, আরবান এ ব্লক স্কুল হতে ৩৭ জন শিক্ষার্থী এবং আরবান সি ব্লক স্কুল হতে ৬২ জন শিক্ষার্থী ।

এছাড়া প্রকল্পের একজন সাইকো কাউন্সিলর বাউনিয়াবাদ এলাবার কিশোর-কিশোরী, আরবান স্কুল ও এলাকার অন্যান্য স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, শিক্ষিকা ও অভিভাবকদের নিয়ে নিয়মিত প্রয়োজনীয় কাউন্সিলিং সেবা প্রদান করে থাকেন । এরই ধারাবাহিকতায় উক্ত মাসে ৭টি একক কাউন্সেলিং, ২ টি ফলোআপ কাউন্সেলিং, ১ টি পরিবার ভিজিট এবং ৩ টি দলীয় কাউন্সেলিং সেবা সম্পন্ন হয়েছে ।

১ ফেব্রুয়ারী ১৬-৩১ জানুয়ারী ১৯ সাল পর্যন্ত তিন বছর মেয়াদী ‘যুক্ত হয়ে মুক্ত’ প্রকল্পটি ঢাকা জেলার পল্লবী থানাধীন বাউনিয়াবাদ এলাকায় বাস্তবায়িত হচ্ছে ।

এই প্রকল্পের লক্ষ্য হচ্ছে সম্ভাব্যতা আছে এবং ইতিমধ্যে শহরে মাইগ্রেট হয়েছে এরকম কিশোরী ও যুব নারী যারা গার্মেন্টস এ কাজ করে তাদের কর্মস্থলে নিরাপদ কর্ম, সুরক্ষিত এবং সক্রিয় আইনের কর্ম পরিবেশ নিশ্চিত ও সামাজিক শর্তসমূহকে পূরণ করা ।  এতে বস্তি ভিত্তিক কিশোরী বা যুব নারী সিদ্ধান্ত গ্রহন প্রক্রিয়ায় ও তাদের স্বার্থ সমর্থনে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহন করবে ।

প্রকল্পের আওতায়  বাউনিয়াবাদ এলাকার ২২২০ জন কিশোরী এই প্রকল্পের পরোক্ষ উপকারভোগী হবে বলে আশা করা যায় ।

ইতিমধ্যেই এ প্রকল্পের আওতায় ২৫ জন করে মোট ২০০ নরমাল ফোন হোল্ডার কিশোরীকে নিয়ে প্রতিমাসে ৮ টি সভা পরিচালনা করা হয় । ২৭ মে ২০১৭ তারিখে স্মার্ট ফোন হোল্ডারদের নিয়ে নিয়ে একটি ট্রেনিং আয়োজন করা হয় । এতে যুক্ত হয়ে মুক্ত নামের অ্যাপস ব্যবহারের বিষয়ে মোট ২০ জন স্মার্ট ফোন হোল্ডারদের এ ট্রেনিংটি প্রদান করা হয় ।

Terre des Homes (TdH) – Italia এর আর্থিক সহায়তায় আরবান পরিচালিত বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় আরবান স্কুল, গাজীপুর জেলার টঙ্গী থানাধীন দত্তপাড়া এরশাদনগর এলাকায় পরিচালিত হয়েছে । ১ জানুয়ারী ২০১৩ থেকে Adventist Development and relief Agency – ADRA Bangladesh এর আর্থিক সহযোগিতায় Tongi children education project – TCEP প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করছে । চার বছর মেয়াদী প্রকল্পটি কেবলমাত্র ১ টি স্কুলের মাধ্যমে নিম্ন আয়ের দরিদ্র ও অবহেলিত শিশুদের জন্য শিশু শ্রেণী থেকে ৫ম শ্রেনী পর্যন্ত প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম ও কাউন্সেলিং সেবা অব্যাহত রয়েছে ।

এ প্রকল্পের উপকারভোগী হচ্ছে টঙ্গী এলাকার ৬ থেকে ১৩ বছরের ৩০০ জন দরিদ্র ও অবহেলিত শিশু কিশোর ।

প্রকল্পের আওতায় মোট কর্মী সংখ্যা ১২ জন । এর মধ্যে ৯ জন নারী ও ৩ জন পুরুষ ।

Terre des Homes (TdH) , Italia এর আর্থিক সহায়তায় আরবান পরিচালিত বিভিন্ন প্রকল্পের আওতায় নারায়নগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানাধীন চাষাড়া এলাকার চাঁনমারীতে আরবান স্কুল পরিচালিত  হয়েছে । পরবর্তীতে ২০১৩ থেকে স্কুলটি দাতা সংস্থার সহায়তা ছাড়াই স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় নিম্ন আয়ের দরিদ্র ও অবহেলিত শিশুদের জন্য শিশু শ্রেণী থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে ।

বর্তমানে স্কুলে মোট কর্মী সংখ্যা ৮ জন । এর মধ্যে ১ জন শিক্ষা অফিসার, ৫ জন শিক্ষা ও ২ জন কেয়ারটেকার । কেয়ারটেকারের মধ্যে ১ জন পুরুষ ও ১ জন মহিলা ।

এ সময়ে আরবান চাঁনমারী স্কুলের মোট ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা ১৫৮ জন । এর মধ্যে ছাত্রী ৮২ জন ও ছাত্র ৭৬ জন ।

আরবান ২০০৯ সাল থেকে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতায় পরিচলিত বিভিন্ন ইন্সটিটিউটের অনার্স শেষবর্ষ ও মাষ্টার্স প্রোগ্রামে অধ্যয়নরত ছাত্র-ছাত্রীদের ব্যবহারিক শিক্ষা প্রশিক্ষণ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে । মে, ২০১৭ মাসে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউট – এর ২৭ তম ব্যাচে যোগদানকৃত ৪ জন শিক্ষার্থীর অরিয়েন্টেশন ২৫ মে ২০১৭ তারিখে কেন্দ্রীয় অফিসে সমন্বয়কারীর কক্ষে অনুষ্ঠিত হয় । এ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকল্যাণ ও গবেষণা ইন্সটিটিউট, শান্তি ও সংঘর্ষ শিক্ষা বিভাগ, সরকার ও রাজনীতি বিভাগ এবং লোক প্রশাসন বিভাগ, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, প্রাইম ইউনিভার্সিটি ও  বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটির অনার্স শেষ বর্ষ ও মাষ্টার্স শেষ বর্ষের ১৪৬ জন ছাত্র-ছাত্রী আরবান এর শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সঞ্চয় ও ঋণ সহায়তা কর্মসূচীর আওতায় ব্যবহারিক শিক্ষা কার্যক্রম গ্রহন করেছেন । জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের ১ জন সরকারী কর্মকর্তা  ( মোঃ হেলাল উদ্দিন, উপ-সচিব, শিক্ষা মন্ত্রনালয়) পিএইচডি গবেষক হিসেবে আরবান এর ‘ মানব উন্নয়নের জন্য স্বাক্ষরতা উত্তর ও অব্যাহত শিক্ষা প্রকল্প-২’ এর মাধ্যমে ব্যবহারিক শিক্ষা গ্রহন করেছেন । প্রাইম ও বাংলাদেশ  ইউনিভার্সিটির ২ জন বিবিএ শিক্ষার্থী আরবান এর Building sustainable Urban communities through improving WASH services for Urban slum Dwellers ও Skill development and income generating activities -IGA প্রকল্পের মাধ্যমে ব্যবহারিক শিক্ষা গ্রহন করেছেন ।

PROJECT INTRODUCTION

“মুক্তির জন্য শিক্ষা” এই স্লোগানকে সামনে রেখে আরবান শিক্ষা কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে সরকারের পাশাপাশি প্রজাতন্ত্রের উন্নয়নের লক্ষ্যে বেসরকারী উন্নয়ন প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহন ও বাস্তবায়ন করে আসছে । এরই ধারাবাহিকতায়  ১ আগষ্ট ২০০১ থেকে Terre des homes (TdH), Italia – এর আর্থিক সহায়তায় আরবান বিভিন্ন প্রকল্পের মাধ্যমে শিক্ষা কার্যক্রম পরিচালনা করেছে  এবং ১ জানুয়ারী ২০১৬ থেকে Education and social support for the children and adolescents living in Bauniabad slum – ESCAS প্রকল্পটি ঢাকা জেলার পল্লবী থানাধীন বাউনিয়াবাদ এলাকায় বাস্তবায়ন করছে । ১ জানুয়ারী ১৬- ৩১ ডিসেম্বর ১৮ পর্যন্ত তিন বছর মেয়াদি প্রকল্পটি কেবলমাত্র বাউনিয়াবাদ এলাকায় ৩ টি স্কুলের মাধ্যমে নিম্ন আয়ের অবহেলিত ও দরিদ্র শিশুদের জন্য শিশু শ্রেণী থেকে ৫ম শ্রেণী পর্যন্ত প্রাথমিক শিক্ষা কার্যক্রম ও কাউন্সেলিং সেবা সংশ্লিষ্ট েএলাকায় বাস্তবায়ন করা হচ্ছে । উল্লেখ্য ১ জানুয়ারী ২০১৭ থেকে উক্ত এলাকায় ২ টি স্কুল পরিচালিত হচ্ছে ।

প্রকল্পের লক্ষ্য ঃ 

প্রাথমিক শিক্ষার সুযোগ বৃদ্ধি ও অত্যাবশ্যকীয় সামাজিক সেবার মাধ্যমে বস্তিবাসীদের দারিদ্র দূরীকরণে সহযোগিতা করা ।

প্রকল্পের উদ্দেশ্য ঃ 

সবার জন্য শিক্ষা-পরিকল্পনা বাস্তবায়নে সহযোগিতা করা এবং প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা হতে বঞ্চিত দরিদ্র শিশুদের প্রাথমিক শিক্ষা, স্বাস্থ্য ও মনো-সামাজিক সেবা প্রদান করা ।